মৃত্যুর কাছে হেরে গেল সালমানের স্বপ্ন

প্রকাশিত: ১১:৫১ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ১, ২০২১ 29 views
শেয়ার করুন
জগন্নাথপুর উপজেলার আশারকান্দি ইউনিয়নের মিঠাভরাং গ্রামের আলিউর রহমান খানের ছেলে সালমান খান শুক্রবার ভোরে এনা পরিবহনের বাসে সিলেট থেকে ঢাকায় যাচ্ছিলেন। সিলেট-ঢাকা মহাসড়কের দক্ষিণ সুরমার রশিদপুর এলাকায় বাসটি পৌঁছানো মাত্র বিপরীত দিক থেকে আসা লন্ডন এক্সপ্রেসের বাসের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত হন সালমান।
 
গতকাল শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৭টার দিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের রশিদপুর এলাকায় এনা পরিবহন ও লন্ডন এক্সপ্রেসের দুটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত আটজনের মধ্যে তিনিও একজন।
 
গত তিনবছর ধরে এনা পরিবহনে সুপারভাইজার পদে নিয়োজিত ছিলেন সালমান খান (২৭)। সেই আয়ের টাকায় সংসার চালানোর পাশাপাশি সৌদি আরবে যাওয়ার জন্য টাকা জমিয়ে রাখতেন তিনি। তবে সৌদি আরবে যাওয়ার স্বপ্ন সত্যি হওয়ার খুব কাছে এসেই মৃত্যুর কাছে হেরে গেলেন সালমান।
 
মিঠাভরাং গ্রামের বাড়িতে তার মরদেহ পৌঁছালে এক হৃদয়বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হয়। সালমানের অকাল মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। ওইদিন বিকেলেই সালমানের জানাজা নামাজ শেষে গ্রামের পঞ্চায়িতী কবরস্থানে সালমানের দাফন সম্পন্ন হয়।
 
নিহত সালমান খানের চাচাতো ভাই আব্দুস সামাদ খান বলেন, ‘এনা পরিবহনে সালমান কাজ করতো। সৌদিআরবে যাওয়ার জন্য তার প্রস্তুতি চলছিল। সালমানের অকাল মৃত্যুতে পরিবারের লোকজনসহ আমরা শোকে মুহ্যমান।’