সুনামগঞ্জে কণ্ঠরোধের প্রতিবাদে ‘কবিতা মিছিল’

প্রকাশিত: ৯:০২ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২১ 34 views
শেয়ার করুন
সুনামগঞ্জে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মাধ্যমে প্রগতিশীল মানুষের কণ্ঠরোধের প্রচেষ্টার প্রতিবাদে ব্যতিক্রমধর্মী ‘কবিতা মিছিল’ করেছেন সংস্কৃতিকর্মীরা।
 
রবিবার (২১ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৫টায় সুনামগঞ্জ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণ থেকে কবিতাকে ফেস্টুন, প্লেকার্ডে, কণ্ঠে স্লোগান বানিয়ে শহর প্রদক্ষিণ করেন সংস্কৃতিকর্মীরা।
 
একপর্যায়ে কবিতা স্লোগানের মিছিলটি প্রতিবাদী মহড়ায় রূপ নেয়। ব্যতিক্রর্মী এই উদ্যোগকে স্বাগত জানান সুধীজন। বিরল ও ব্যতিক্রমধর্মী এই কবিতা মিছিলে সলিল চৌধুরী, সুকান্ত ভট্টাচার্য্য, ইসতেকলাল হোসেন, আল মাহমুদসহ অন্যান্য কবিদের কবিতা দিয়ে স্লোগান তৈরি করা হয়। সেই স্লোগান কণ্ঠে নিয়ে রাজপথে গর্জন তোলেন সংস্কৃতিকর্মীরা।
 
কবিতা মানুষের দাবি আদায়ের ভাষা- এ ভাবনা থেকে সুনামগঞ্জের আবৃত্তি সংগঠন ‘সত্যশব্দ’ কবিতা মিছিলের আয়োজন করে। সংগঠনের প্রতি সংহতি জানিয়ে সুনামগঞ্জের ‘প্রসেনিয়াম’ নাট্যসংগঠনের কর্মীরা এতে যোগ দেন। এছাড়া বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠনের কর্মীরাও কবিতা মিছিলে যোগ দিয়ে কণ্ঠে কবিতার পংক্তি তুলে নেন। কবিতাকে স্লোগান বানিয়ে কণ্ঠে ধরেন সত্যশব্দ’র প্রতিষ্ঠাতা ও নাট্যকর্মী দেবাশীষ তালুকদার শুভ্র।
 
কবিতা মিছিলে সলিল চৌধুরীর শপথ কবিতাটিকে স্লোগান বানিয়ে কণ্ঠে ধরেন মিছিলে আসা সংস্কৃতিকর্মীরা। ‘সেদিন রাত্রে সারা কাকদ্বীপে হরতাল হয়েছিলো/ সেদিন আকাশে জলভরা মেঘ বৃষ্টির বেদনাকে বুকে চেপে ধরে থমকে দাঁড়িয়েছিলো..।’ এবং ‘তাই গ্রাম নগর, মাঠ, পাথার, বন্দরে তৈরি হও/ কার ঘরে জ্বলেনি দ্বীপ চির আঁধার তৈরি হও/ কার বাছার জোটেনি দুধ, শুকনো মুখ তৈরি হও/ ঘরে ঘরে ডাক পাঠাই, জোট বাঁধো তৈরি হও/ মাঠে কিষান, কলে মজুর, নওজোয়ান জোট বাঁধো’ রক্তে আগুন ধরা এসব কবিতার পংক্তিতে রাজপথে তুমুল স্লোগান তুলেন সংষ্কৃতিকর্মীরা। তারা বাংলা বর্ণমালায় সাজানো কালো ও সাদা রঙের পোশাক পড়ে মিছিলে অংশ নেন। শিশু-কিশোর, নারী-পুরুষসহ বিভিন্ন বয়সের সংষ্কৃতিকর্মীরা কবিতা মিছিলে অংশ নিয়ে রাজপথে বারুদ স্লোগানে কম্পন তোলেন। মিছিলে এক অন্যরকম প্রতিবাদী আবহ তৈরি হয়। পরে শহীদ মিনারে এসে দেশের প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলা বিভাগ চালু এবং বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলা ভাষাকে উপেক্ষার প্রতিবাদ জানান সংস্কৃতিকর্মীরা।
 
ব্যতিক্রমী এই কবিতা মিছিলের আয়োজক সত্যশব্দ’র প্রতিষ্ঠাতা দেবাশীষ তালুকদার শুভ্র বলেন, ‘ভাষা আন্দোলন শুধু মাতৃভাষার প্রতি আমাদের ভালোবাসা প্রকাশ করে না। ভাষা আন্দোলন নিজের অধিকার নিজে বুঝে নেওয়ার সাহস যোগায়। আমরা ধারণ করি যে কবিতা কেবল কবিতা নয়। কবিতা হচ্ছে স্লোগান, বিদ্রোহ ও দাবি আদায়ের ভাষা। ডিজিটাল আইনে দেশের প্রগতিশীল সংস্কৃতি ও সাহিত্যকর্মীদের কণ্ঠরোধের প্রতিবাদে আমাদের এ আয়োজন।’
 
মিছিলকারীদের হাতে সর্বস্তরে বাংলা ভাষা চালুর দাবি, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলসহ নানা দাবি সম্বলিত প্লেকার্ড ছিল।
____________
সূত্রঃ সিলেট মিরর