ভারতে করোনার টিকা নেয়ার পর ৪৪৭ জনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া

প্রকাশিত: ১:১৮ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ১৮, ২০২১ 51 views
শেয়ার করুন

ভারতে করোনার টিকা নেয়ার পর ৪৪৭ জনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে বলে জানিয়েছে আনন্দবাজার। শনিবার দেশটিতে কোভিড টিকাদানের কর্মসূচি হয়।

রবিবার দেশটির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানায়, দুই দিনে টিকা দেওয়ার পর সাড়ে চার শ’র মানুষের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। তাদের কারো অবস্থা গুরুতর নয়। তবে দিল্লিতে টিকা নিয়ে এক ব্যক্তি সামান্য গুরুতর অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে।

রবিবার সন্ধ্যায় দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, রবিবারও ৫৫৩ কেন্দ্রে করোনার টিকা দেওয়া হয়েছে মোট ১৭ হাজারেরও প্রথম সারির কোভিডযোদ্ধাকে। যা নিয়ে ভারতে টিকা পেল প্রায় ২ লাখ ২৪ হাজার মানুষ। অন্ধ্রপ্রদেশ, অরূণাচল প্রদেশ, কর্ণাটক, কেরল, মণিপুর এবং তামিলনাড়ুতে শনিবার টিকার ডোজ দেওয়া হয়।

তারা জানায়, তবে দু’দিনে এখন পর্যন্ত মোট ৪৪৭ জনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার রিপোর্ট সরকারিভাবে নথিবদ্ধ হয়েছে। তার মধ্যে ৫১ জনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হয়েছে দিল্লিতে।  দিল্লির হাসপাতালের নিরাপত্তারক্ষী (২২) এক যুবককে সামান্য গুরুতর অবস্থায় হাসপাতালের ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে।

রবিবার দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, টিকা নেয়ার পর কোনোরকম শারীরিক সমস্যা দেখা দিলে তার মোকাবিলা কীভাবে করা হবে, তা নিয়ে নির্দিষ্ট গাইডলাইন রয়েছে। সেই অনুযায়ী চিকিৎসক নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে।

তারা জানায়, পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার মধ্যে যে সব উপসর্গ দেখা দিয়েছে, তার মধ্যে রয়েছে টিকা নেয়ার জায়গায় সামান্য ফুলে যাওয়া, সামান্য ঘুম ঘুম ভাব অথবা অ্যালার্জির প্রবণতা। ৪৪৭ জনের মধ্যে তিনজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। তাদের মধ্যে আবার দু’জনকে দিল্লির এইমস ও রেলওয়ে হাসপাতাল থেকে চিকিৎসার পর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। অন্যজন হাসপাতালে পর্যবেক্ষণে রয়েছেন।

অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার তৈরি টিকা ‘কোভিশিল্ড’ ভারতে উৎপাদন করে সিরাম ইনস্টিটিউট। ভারতীয় সংস্থা তৈরি করেছে ‘কোভ্যাক্সিন’। এ দুই টিকাকেই জরুরি ভিত্তিতে ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে ভারত।